টিপস মেয়ে পটানো ১. আপনার প্রিয় মানুষটির ছোট ছোট ভালো লাগার বিষয়গুলো খেয়াল রাখুন। যেমনঃ কি খেতে পছন্দ করে, কোথায় যেতে পছন্দ করে, কি গান শুনতে পছন্দ করে, ইত্যাদি।

মেয়ে পটানো টিপস

মেয়ে পটানো
মেয়ে পটানো টিপস ২. কথা বলার সময় সরাসরি চোখের দিকে তাকিয়ে কথা বলুন। এতে আপনার সম্পর্কে তার বিরুপ ধারণা হবে না।
মেয়ে পটানো টিপস ৩. সবসময় প্রশংসা করবেন, কারণ সব মেয়েরায় চায় কেউ তার প্রশংসা করুক। প্রশংসা করবেন, আজ তাকে কেমন লাগছে, কোন কাপড়টাই তাকে ভালো লাগছে ইত্যাদি।
মেয়ে পটানো টিপস ৪. সবসময় নিজের উপর আত্মবিশ্বাস রাখবেন। অনেক ছেলেরা আছে যারা মেয়েদের সামনে গেলে, তাদের সাথে কথা বললে ঘেমে ঝোল হয়ে যায়, মেয়েরা এটা মোটেও পছন্দ করে না, আপনাকে ভিতু ভাবতে পারে।
মেয়ে পটানো টিপস ৫. বাচনভঙ্গি ঠিক রেখে পরিমার্জিত ভাবে গুছিয়ে কথা বলার চেষ্টা করবেন।
মেয়ে পটানো টিপস ৬. অনেক ছেলেরা স্মোকিং করাটাকে স্টাইল মনে করে, ভাবে যে এটা মেয়েদের পছন্দের। কিন্তু এটা ভুল, মেয়েরা মোটেও স্মোকারদের পছন্দ করেন না।
মেয়ে পটানো টিপস ৭. শার্টের উপরের বোতাম দুইটা বন্ধ রাখবেন। বুকের লোম দেখানোর স্টাইল সেকালের নায়কেরা করত।
মেয়ে পটানো টিপস ৮. যদি কোন সেলেব্রিটিকে ফলো করতে চান, তাহলে বলব “তাহসান” ভাইকে ফলো করতে পারেন।
মেয়ে পটানো টিপস ৯. রোমান্টিক মুভি(শাহরুখ ভাইয়ের মুভিগুলো), নাটক (তাহসান ভাইয়ের নাটকগুলো) দেখুন ভিতরে রোমান্টিকতা আসবে। সব মেয়েরাই চায় তার প্রিয় মানুষটি একটু রোমান্টিক হোক, একটু দুষ্ট হোক, একটু কেয়ারফুল হোক।
মেয়ে পটানো টিপস ১০. কথার মাঝখানে কখনো রোমান্টিক ডায়লগ দিবেন, একসাথে হাতে হাত রেখে চলবেন, সূর্যাস্ত দেখবেন, একটি কোল্ড ড্রিঙ্কস দুইজনে শেয়ার করবেন ইত্যাদি। ক্যানডেল লাইট ডিনার টা অনেক মেয়েদের পছন্দের।
মেয়ে পটানো টিপস ১১. অনেক মেয়ে আছে যারা গিফট পছন্দ করে, তবে মেয়েদের জন্য সবচেয়ে বড় গিফট হল, বেস্ততার মাঝে আপনি তাকে কতটুকু সময় দিচ্ছেন, কতটুকু তার কেয়ার করছেন। একটি মেয়ে সবসময় চায় তার প্রিয় মানুষটি তাকে সময় দিক, তার পাশে থাকুক।
মেয়ে পটানো টিপস ১২. মাঝে মাঝে কিছু রোমান্টিক মুহূর্ত তাকে গিফট দিন, যেমন বৃষ্টি ভেজা দিন, জোছনার রাত, শেষ ক্লান্ত বিকেলের সূর্যাস্ত । ডায়লগ হতে পারে এমন রোমান্টিক মুহূর্তে/দিনে তোমাকে মিস করছি ভীষণ।
মেয়ে পটানো টিপস ১৩. পরিশেষে একটা কথায় বলব আপনার ভালোবাসার মানুষটিকে বুঝতে শিখুন, তার যেটা অপছন্দ সেটি করা থেকে বিরত থাকুন, মোস্ট আর ইম্পরট্যান্টলি তাকে সময় দিন।

নোটঃ মেয়েদের আজ পর্যন্ত কেউ বুঝতে পারেনি, কত শত কবি কত কাব্য রচনা করে গেছেন, কত শিল্পী গেয়েছেন কত সুরে গান। কবি বলেছেন “মেয়েদের মন আকাশের রঙ”
এত গুণীজনদের ভিড়ে আমি নগণ্য মাত্র। যাই হোক এই ছিল মেয়েদের সম্পর্কে আমার ছোট্ট গবেষণার ফল।

আমি ফেসবুকে

1 COMMENT