অনেকেই বলে ফানুস এ নিজের মনের ইচ্ছা লিখে লিখে উড়িয়ে দিলে সেই ইচ্ছা পূরণ হয়। কোন উৎসবকে আলাদা পর্যায়ে নিয়ে যেতে ফানুস এর বিকল্প নেই। তাছাড়া ফটোগ্রাফির একটা চমৎকার সাবজেক্ট হলো ফানুস । কিন্তু আমাদের  দেশে ফানুস পাওয়া যায়না বললেই চলে। যেগুলো পাওয়া যায় সেগুলোর দাম এতই বেশী যে হাত দিতেও ভয় লাগে।

তাই অনেকদিন ধরেই নেটে বাংলায় ফানুস তৈরির পদ্ধতি খুজছি। কিন্তু তেমন কিছুই খুজে পাচ্ছিলাম না। একারনে নিজেই বাংলায় ফানুস তৈরির উপর একটা পোষ্ট লিখে ফেললাম। আশা করি আপনাদের ভালো লাগবে।

ফানুস তৈরির প্রক্রিয়া!

যা যা দরকারঃ

ফানুস (4)
  • – টিস্যু বা খুব পাতলা পেপার
  • – আঠা
  • – পেইন্ট ব্রাশ
  • – পাতলা তার
  • – বাঁশের পাতলা কঞ্চি
  • – কেঁচি
  • – ছুরি
  • – প্লাস বা তার কাটার যন্ত্র
কার্যপ্রণালীঃ

– প্রথমে চারটি বড় টিস্যু পেপার একটি আরেকটির উপর একসাথে রাখুন
– এরপর এটি লাম্বালম্বি দুই ভাজ করুন
– এরপর এটি কেঁচি দিয়ে ঘণ্টার মত করে চিত্র অনুযায়ি কাটুন

ফানুস (1)
– কাগজের ভাজ খুলুন এখন আপনার কাছে চারটি বড় আকারের ঘণ্টা আকৃতির কাগজ থাকবে ।
 ফানুস (6)

– এরপর চারটি কাগজকে একটি আরেকটির সাথে আঠা দিয়ে লাগিয়ে দিন যেন তারা বেলন আকৃতির মত হয়
 ফানুস (3)

– এরপর বাঁশের পাতলা কঞ্চি নিয়ে সেটা কাগজের যে পাশে খোলা আছে সে পাশের মাপমত করে একটি গোলাকার চাকতি তৈরি করুন
– এবার পাতলা তার দিয়ে চিত্রানুযায়ি একটি মোমবাতি যুক্ত করি । মোমবাতির পরিবর্তে অন্য দাহ্য বস্তুও ব্যবহার করতে পারেন।
ফানুস (2)

– এরপর বাঁশের চাকতিটি কাগজে যুক্ত করুন ।
 fanus

-এরপর সাবধানে আগুন দিন । যখন ভিতরে গরম বাতাস দিয়ে পূর্ণ হবে তখন তা আস্তে আস্তে উপরের দিকে উঠতে থাকবে। তখন তা ছেড়ে দিন ।
ফানুস,fanus,ফানুস তৈরি,air balloon,ফটোগ্রাফি ফানুস

3 COMMENTS

  1. ভাই এভাবে দুর্ঘটনা ডেকে আনবেন না। এভাবে ফানুস বানালে তা দুর্ঘটনার কারন হবে। দয়া করে আ ধরেনের পোস্ট দেওয়া থেকে বিরত থাকুন। ফানুস এর দাম একটু বেসি হলেও তা অনেক কিছু ভেবে তৈরি করা হয়।
    ফানুস এর পেপার আগুন নিরধক হয়। আর এটা না হলে ফানুস পরে গেলে সেটা অগ্নিউতপাত এর কারন হবে। আর ভাল ফানুস এর জালানিটা ভাল হয়। শুধু মম ব্যবহার করলে সেটা গলে নিচে পরে ক্ষতি করতে পারে।
    ভাল মানের এক্সপোর্ট কোয়ালিটির ফানুস পেতে জজাজগ করুন – ০১১৯৯৯৫৬৮২৩
    http://ronginfanush.com/