ঈদের আর বেশি দিন বাকী নেই।
শুরু হয়ে গেছে কোরবানীর হাট।
প্রচুর ধুমধামে শুরু হচ্ছে কোরবানীর পশু কেনা।

সেইসাথে বাজারে ডুকছে প্রচুর পরিমানে ইঞ্জেকশন ওয়ালা মোটা তাজা গরু

গরু কিনবেন টাকা দিয়ে টকা খাবেন কেন।
দেখে নিন কিভাবে চিনবেন

গরু!

 

গরু

→ট্যাবলেট খাইয়ে মোটাতাজা করা গরু চেনা খুব সজহ। যদি চেনার বিষয়গুলো আপনার জানা থাকে।

আসুন জেনে নিই ক্ষতিকারক ওষুধ খাওয়ানো মোটাতাজা গরু চেনার উপায়।

♦ অতিরিক্ত হরমোনের কারণে স্টেরয়েড ট্যাবলেট খাওয়ানো বা ইনজেকশন দেয়া গরু র পুরো শরীরে পানি জমে মোটা দেখাবে। আঙুল দিয়ে গরু র শরীরে চাপ দিলে সেখানে দেবে গিয়ে গর্ত হয়ে থাকবে।

♦স্টেরয়েড ট্যাবলেট খাওয়ানো বা ইনজেকশন দেয়া গরু হবে খুব শান্ত। ঠিকমতো চলাফেরা করতে পারবে না। পশুর ঊরু অনেক মাংসল মনে হবে।

এগুলোই কৃত্রিম উপায়ে মোটাতাজা করা গরু চেনার সহজ উপায়।

♦স্টেরয়েড ট্যাবলেট খাওয়ালে গরু র প্রস্রাব বন্ধ হয়ে যায়, এর ফলে শরীরে পানি জমতে শুরু করে। ফলে গরু মোটাতাজা দেখায়। এ গরু নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে জবাই না করলে মারাও যেতে পারে, অথবা শরীরের মাংস কমে যেতে পারে।

তবে যাই হোক না কেন, এমন গরু র মাংস খাওয়া খুবই বিদজ্জনক। কারণ ওই ওষুধ তীব্র তাপেও নষ্ট হয় না। ফলে মানবদেহে দীর্ঘমেয়াদি প্রভাব ফেলে।

ক্ষতিকর হরমোন ব্যবহার করা গরু দেখলেই চেনা যাবে।

→বিশেষ করে গরু র পা ও মুখ ফোলা থাকবে।
→শরীর থলথল করবে।
→অধিকাংশ সময় গরু ঝিমাবে।
→সহজে নড়াচড়া করবে না।
→এমনকি গরু র শরীরের যে কোনো অংশে চাপ দিলে ডেবে যাবে।

এ বিষয়ে ঢাকা সিটি করপোরেশনের পশু চিকিৎসক ডা. আজমত আলী বলেন, অতিমাত্রায় হরমোন ব্যবহার করলে গরু র শরীরে ব্যাপক পানি জমে। এতে গরু মোটাতাজা দেখায়। কিন্তু গরু র কিডনি, লিভার ও পাকস্থলি নষ্ট হয়ে যায়। এই গরু র মাংশ খেলে মানব দেহে নানা ধরনের শারীরিক জটিলতা দেখা দিতে পারে।

#_
ঈদের গরু ছাগল যা কিছুই কিনেন না কেন দেখে শুনে কিনুন।
টাকা দিয়ে কিনবেন দেশি গরু কিনুন ।

-আপনার পরিচিত দের গরু চিনার ব্যাপারে সহায়তা করুন।

#_
ঈদ হোক আনন্দের
সবাইকে ঈদের অগ্রিম শুভেচ্ছা

_ঈদ মোবারক_

(সংগ্রহিত)

এডমিনের প্রতি অনুরোধ প্লিজ টিউনটি রিমুভ করবেন না।
কারো না কারো উপকারে আসতে পারে।

ভুলত্রুটি ক্ষমা সুলভ দৃষ্টিতে দেখবেন আশা করি