অতীতের কোন দুঃখজনক ঘটনা আজও দাগ কেটে আছে আপনার মনে ?  কিংবা মাঝেই মাঝেই পুরনো কোন ব্যাথা আপনাকে পীড়া দিচ্ছে ? ভাবছেন, ইশ ! যদি কম্পিউটার মেমোরীর মতো মস্তিস্ক থেকেও কষ্টের স্মৃতি মুছে ফেলা যেত ! অদূর ভবিষ্যতেই হয়তো বাস্তব হতে চলেছে আপনার এমন স্বপ্ন ! তবে চলচ্চিত্রের কাহিনীর ন্যায় ‘ইলেকট্রিক শক’ বা ‘ ব্রেইন ওয়াশ’ পদ্ধতিতে নয়, একাজ করা যাবে জেনন গ্যাস ব্যবহার করে। চেতনা নাশক হিসেবে ব্যবহৃত জেনন গ্যাস ব্যবহার করে চাইলেই মুছে ফেলা যাবে আপনার পুরনো কষ্টের দাগ, চাইলেই মুছে ফেলা সম্ভব হবে অতীতের কোন দুঃখের স্মৃতি !

ব্রেইন ওয়াশ 🙂

ব্রেইন

ইতোমধ্যেই ইঁদুরের ওপর পরীক্ষা চালিয়ে প্রাথমিক সফলতা পেয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাকলিন হসপিটাল ইন ম্যাসাচুসেটসের এক দল গবেষক। গবেষক দলের প্রধান হার্ভার্ড মেডিকাল স্কুলের অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর এবং ম্যাকলিন হসপিটাল ইন ম্যাসাচুসেটসের গবেষক এডওয়ার্ড জি মেলোনি জানিয়েছেন, প্রাথমিক ভাবে স্বল্প মাত্রায় ইঁদুরের ওপর জেনোন গ্যাস প্রয়োগ করায় এরা ভয়ের স্মৃতি ভুলে যাচ্ছে বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। এবার তারা মানুষের ক্ষেত্রে রোগী শ্বাস নেওয়ার সময় অক্সিজেনের সঙ্গে জেনোন গ্যাস গ্রহণ করবেন এবং একই সময়ে কষ্টের স্মৃতি মনে করার চেষ্টা করবেন।

এই প্রযুক্তিতে গবেষকরা পুরোনো স্মৃতি মনে করার সময় মানুষের মস্তিষ্ক যখন সেই স্মৃতিগুলোকে আবার নতুন স্মৃতি হিসেবে তৈরি করতে শুরু করবে তখন জেনন গ্যাস ব্যবহার করে সেই নতুন স্মৃতি তৈরি হওয়ার পদ্ধতিটাই আটকে দেবেন। তখন আর অতীতের কষ্টগুলো কুঁড়ে কুঁড়ে খাবে না। গবেষণা নিয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করে এডওয়ার্ড জি মেলোনি বলেছেন, “কষ্টের স্মৃতি কমিয়ে আনতে জেনন গ্যাসের কার্যকারীতার প্রমাণ পেয়েছি আমরা। পোস্ট ট্রমাটিক স্ট্রেস ডিসওর্ডার (পিটিএসডি) চিকিৎসায় যুগান্তকারী আবিষ্কার হতে পারে এটি।”