কেমন হতো যদি স্মার্টফোন, ল্যাপটপ কিংবা অন্যান্য ডিভাইসের জন্য প্রয়োজনীয় বিদ্যুৎ পাওয়া যেত পানির ফোটা থেকে ? বেশ অবাক মনে হলেও এমনই এক প্রযুক্তি উদ্ভাবন করেছে যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাচাসুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির একদল গবেষক।গবেষকদের মতে, পানিরোধী কোন তল থেকে অনবরত পানির ফোটা পড়তে থাকলে সেখানে বিদ্যুৎ উৎপন্ন হয় যা থেকে ইলেক্ট্রনিকস ডিভাইস চার্জ দেওয়া সম্ভব। Nenad Miljkovic এবং Evelyn Wang নামক দুইজন গবেষক প্রথম এই গবেষণার উদ্যোগ নেন। আর এরপর তাঁরা এই কাজের জন্য একটি ডিভাইস তৈরি করে দেখান। এছাড়াও তাঁরা আরও জানিয়েছেন, এর ফলে বিশুদ্ধ পানি পাওয়া যাবে।

MITnews_ElectroStatic_03

 

Miljkovic জানিয়েছেন, এই বিশেষায়িত ডিভাইসটি কিন্তু খুবই সাধারন দেখতে। এটি কেবলমাত্র কয়েকটি মেটাল প্লেট দিয়ে তৈরি করা হয়েছে। যদিও প্রাথমিক অবস্থায় তাঁরা কপার প্লেট ব্যবহার করেছিলেন, তবে তাঁরা জানিয়েছেন, যেকোন পরিবাহী ধাতব পদার্থ ব্যবহার করা যাবে।

image12

 

তাঁরা যখন প্রথমবার এই পরীক্ষাটি চালান, তখন খুব সামান্য পরিমান বিদ্যুৎ উৎপন্ন হয়েছিল আর এর পরিমান ছিল মাত্র ১৫ পিকোওয়াট প্রতি সেন্টিমিটারে। তবে Miljkovic জানিয়েছেন, এটিকে খুব সহজে প্রতি সেন্টিমিটারে ১ মাইক্রোওয়াটে রূপান্তর করা সম্ভব। সে হিসেবে, ৫০ সেন্টিমিটারের একটি ধাতব প্লেট ব্যবহার করে ১২ ঘণ্টায় একটি ফোন চার্জ দেওয়া সম্ভব, দেখিয়েছেন Miljkovic।

তবে সবকিছু ঠিক থাকলেও কিছু সমস্যা রয়েছে। যেমন, এই কাজের জন্য প্রয়োজন হবে আর্দ্র পরিবেশ। আরও লাগবে কক্ষ তাপমাত্রার থেকে কম তাপের একটি উৎস।

তবে যেহেতু এটি খুবই সম্ভাবনাময় একটি উৎস, আশা করা হচ্ছে অতিসত্বর সব বাঁধা ছাপিয়ে এটি অবমুক্ত করা হবে।

পানির ফোটা থেকে চার্জ দেওয়া যাবে ইলেক্ট্রনিক্স ডিভাইস,ইলেক্ট্রনিক্স ডিভাইস,পানির ফোটা থেকে চার্জ,পানির ফোটা,water charger,water,water drop charger,Miljkovic, ১২ ঘণ্টায় একটি ফোন চার্জ দেওয়া সম্ভব,science,বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি