ল্যাপটপ বা নোটবুক যত স্লিম বা হালকা হোক না কেন বাজারে এর বিকল্প হিসেবে আসছে সারফেস প্রো ৩। মাত্র ৮০০ গ্রাম ওজনের এই ডিভাইসের থাকছে তিন রকমের কনফিগারেশন। অর্থাৎ ব্যবহারকারী তিন ধরনের স্পেসিফিকেশন থেকে পছন্দ অনুযায়ী ক্রয় করতে সক্ষম হবেন। গতকাল মাইক্রোসফট এই তিনটি ডিভাইসের সাথে বিশ্ববাসীকে পরিচয় করিয়ে দেয়।

SURFACE

মাইক্রোসফটের সিইও সত্য নাদেলা গতকাল নতুন সারফেস ট্যাবের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিন ধরনের ট্যাব সবার সামনে তুলে ধরেন। এতদিন যাবত সারফেস মিনি বাজারে আসার গুজব রটেছিল। কিন্তু মাইক্রোসফট বলেছে তারা সারফেস মিনি বাজারে আনতে আগ্রহী নয়। তিনি ১২ ইঞ্চির সারফেস প্রো ৩ সবার সামনে প্রদর্শন করেন।

surface-pro-3-type-covers

নতুন সারফেস ট্যাবের তিন ধরনের কনফিগারেশন রয়েছে। কোর আই৩, কোর আই৫ এবং কোর আই৭ প্রসেসর চিপ সম্বলিত ট্যাব গুলোর মূল্য শুরু হবে ৮০০ ডলার থেকে। হ্যাঁ দাম বেশি বটে। তবে চমৎকার ডিভাইস দিয়ে মাইক্রোসফট অ্যাপলের সাথে প্রতিযোগিতার চেষ্টা চালাচ্ছে। মূল লক্ষ অ্যাপলের আইপ্যাড কে পেছনে ফেলা।

apple-laptops-surface-event

যুক্তরাষ্ট্রে জুনের ২০ তারিখ থেকে পাওয়া যাবে এই ট্যাব এবং অন্যান্য দেশে পাওয়া যাবে অগাস্ট মাস থেকে।

OLYMPUS DIGITAL CAMERA

সত্য নাদেলা সারফেস ট্যাবের অনুষ্ঠানে স্টেজে উঠে যা বলেন:

“Today is the next step in [our] journey. We want to talk about devices and hardware. But it starts for us with this obsesssion with empowering every individual and organisation to do more and be more. That is what we at Microsoft are all about. This is the unifying theme across the entire company.”

এতদিন যারা ল্যাপটপ কেনার কথা ভাবছিলেন তারা আর কিছুদিন অপেক্ষা করে কিনতে পারেন এই সারফেস ট্যাব (প্রো ৩)। ফ্রিকশন হিঞ্জের মত অত্যাধুনিক প্রযুক্তি এবং শক্তিশালী ফোর্থ জেনারেশনের প্রসেসর সম্বলিত অত্যন্ত হালকা ও পাতলা এই সারফেস ট্যব ব্যবহারকারীকে দিবে চমৎকার অভিজ্ঞতা। বিস্তারিত