সাউথ কোরিয়ান প্রতিষ্ঠান স্যামসাং তাদের বড় পর্দার আকর্ষণীয় স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৭ ফোনের উৎপাদন সাময়িকভাবে স্থগিত করেছে বলে খবর প্রকাশ করেছে সাউথ কোরিয়ান ইয়নহাপ নিউজ এজেন্সি। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন স্যামসাং কর্মকর্তা বলেন, দক্ষিণ কোরিয়া, চীন এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে নিরাপত্তা নিয়ন্ত্রকদের সহযোগিতায় স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৭ এর উৎপাদন স্থগিত করা হয়েছে।

নোট ৭ বাজারে আসার কিছুদিনের মধ্যেই অতিরিক্ত তাপমাত্রায় ব্যাটারি বিস্ফোরণের ঘটনায় বাজার থেকে ২৫ লাখ সেট তুলে নেয় প্রতিষ্ঠানটি, কিন্তু বদলে দেয়া নতুন ফোনেও রয়ে গেছে এই সমস্যা। বেশ কিছুদিন ধরেই গণমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদনে উঠে আসে বিভিন্ন জায়গায় আবারও বিস্ফোরণ।  ৫ অক্টোবর বুধবার সাউথওয়েস্ট এয়ারলাইনসের একটি বিমানে স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৭ –এর একটি ইউনিটে আগুন লাগার অভিযোগ পাওয়া যায়। এরপর কেনটাকির এক ব্যক্তির অভিযোগ করেছেন, তিনি ঘুম থেকে জেগে শোয়ার ঘরভর্তি ধোঁয়া দেখেন। তিনি দাবি করেন, তার স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৭ থেকে এই ধোঁয়ার সৃষ্টি হয়।

সেপ্টেম্বর মাসে প্রচুর নোট ৭ ফেরত নেওয়ার সময় স্যামসাং বলেছিল, তারা সমস্যা শনাক্ত করে সমাধান করেছে।

স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৭ উৎপাদন স্থগিত

%e0%a6%b8%e0%a7%8d%e0%a6%af%e0%a6%be%e0%a6%ae%e0%a6%b8%e0%a6%be%e0%a6%82-%e0%a6%97%e0%a7%8d%e0%a6%af%e0%a6%be%e0%a6%b2%e0%a6%be%e0%a6%95%e0%a7%8d%e0%a6%b8%e0%a6%bf-%e0%a6%a8%e0%a7%8b%e0%a6%9f

চলতি মাসের শুরুর দিকে বেশ ঢাকঢোল পিটিয়েই বাজারে এসেছিল স্যামসাং স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৭ ।

তবে এরই মধ্যে ক্রেতারা ফোনটি নিয়ে নানা অভিযোগ করা শুরু করেছেন। ফোনটি যখন তখন নাকি ক্র্যাশ করে যাচ্ছে।

তবে যাঁরা এক্সিনোস প্রসেসর ব্যবহার করছেন, কেবল তাঁদের ফোনেই এই বিপত্তি দেখা দিচ্ছে। এ খবর জানিয়েছে ভারতীয় দৈনিক ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট অ্যান্ড্রয়েড সেন্ট্রাল ফোরামে ব্যবহারকারীরা এসব অভিযোগ তুলে ধরেছেন।

কারো কারো ভাষ্যমতে, কোনো কারণ ছাড়াই যখন তখন ফোনটি রিস্টার্ট নিচ্ছে, আবার কখনো কখনো হঠাৎ করেই ফোনটির লক

স্ক্রিন কাজ করছে না কিংবা ফোনের সব কার্যক্রম স্থির হয়ে যাচ্ছে। ব্যবহারকারীরা ধারণা করছেন, সফটওয়্যার আপডেট

বা প্লেস্টোর থেকে নামানো অ্যাপ্লিকেশনের কারণে এমনটা হতে পারে।

স্যামসাং কর্তৃপক্ষ অবশ্য এই সমস্যা নিয়ে কোনো বিবৃতি দেয়নি। এমনকি স্যামসাং-এর কাস্টমার কেয়ার সেন্টারগুলোও ব্যবহারকারীদের সমাধান বাতলে দিতে ব্যর্থ হয়েছে।

গত ২ আগস্ট বাজারে ছাড়া হয় স্যামসাং স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৭ ।

৪ জিবি র‍্যাম, ৬৪ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ, আইরিস স্ক্যানার এবং মার্শম্যালো প্রসেসরযুক্ত

ফোনটি বাজারে দারুণ জনপ্রিয় হবে বলেই ধারণা করেছিলেন প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা।

কিন্তু বাজারে ছাড়ার মাসখানেকের মধ্যেই এত সব সমস্যা দেখা দেওয়ায় ফোনটি আশানুরূপ বিক্রি হবে না বলেই ধারণা করা হচ্ছে।

সুত্রঃ সিনেট