বর্তমানে ওয়াইফাই সন্দেহাতীত ভাবে একটি প্রয়োজনীয় অনুষঙ্গ। ওয়াইফাই এর মাধ্যমে এনক্রিপ্টেদ তথ্য বাতাসের মধ্যে দিয়ে চলে যায়। কিন্তু আপনি টা জানতেও পারেন না । WEP (Wired Equivalent Privacy) ছিল প্রথম নিরাপদ এন ক্রিপ্সন পদ্ধতি। কিন্তু WPA , WPA-PSK (Works Progress Administration) ইত্যাদি পদ্ধতি এর জায়গা দখল করে নিয়েছে । সাধারনত WEP wifi  হ্যাক  করতে 5-6 ঘণ্টা সময় লাগে। কিন্তু ভাল সিগন্যাল পেলে আর ও কম  সময় এর মধ্যে করা যায় ।

Tools to Be Used
আমরা ওয়াইফাই হ্যাক করতে ২ টি টুল ব্যবহার করব।

1. Commview For Wifi

এটি একটি প্যাকেট স্নিফিং টুল । মানে এটি ওয়াইফাই তে প্রবাহিত হওয়া ইন্টারনেট প্যাকেট গুলো ধরে এবং জমা করে । যত প্যাকেট জমবে তত WEP. হ্যাক করার সুযোগ বেড়ে যাবে ।  আমাদের কমপক্ষে ১০০০০ প্যাকেট লাগবে ওয়াইফাই এর পাসওয়ার্ড ভাঙ্গার জন্য
packet গুলো আসবে .ncp ফরমেটে  । আমরা একে .cap ফরমেটে বদলে নেব ।
আমি এই টিউটোরিয়ালে উইন্ডোজ ৭ ব্যবহার করেছি । আপনি অন্য কোন সিস্টেম ব্যবহার করতে পারেন।  কিন্তু আপনার ওয়াইফাই কার্ড সাপোর্ট না করলে virtual machine এ উইন্ডোজ ৭ ইন্সটল করে নেবেন।
2.Aircrack-Ng GUI :
এই সফটওয়্যার এর সাহায্যে আমরা ফাইল কে .cap ফরমেটে নিয়ে যাব । এগুলো নিচের লিঙ্ক থেকে নামিয়ে নিন ।
Commview For Wifi >http://www.tamos.com/download/main/ca.php
Aircrack-Ng GUI> http://www.aircrack-ng.org/
মনে রাখবেন এই সফটওয়্যার গুলো চালাতে হলে আপনাকে কম্পিউটার এ adminstrator mode এ কাজ করতে হবে ।

LET THE HACKING BEGIN !!!!

প্রথমে commonview সফটওয়্যার টি ইন্সটল করুন । আপনি voip বা standerd যে কোন মোড এ ইন্সটল করতে পারেন । আমি voip দিয়ে করেছি। এটি automettically  প্রয়োজনীয় ড্রাইভার ইন্সটল করতে থাকবে।
আপনি এই সফটওয়্যার ব্যবহার করে কোন নেটওয়ার্ক এ যুক্ত হতে পারবেন না। এটি সুধু হ্যাকিং টুল ।
এখন সফটওয়্যার চালু করে বামদিকের প্লে আইকন এ ক্লিক করুন ।
wifi hacking0
একটি নতুন উইন্ডো ওপেন হবে ।  সেখানে start scanning বাটনে ক্লিক করুন ।
wifi2

এখন ডান দিকের উইন্ডো তে আপনি অনেকগুলো নেটওয়ার্ক দেখতে পাবেন । ইচ্ছামত যে কোন একটি কে সিলেক্ট করুন এবং capture বাটনে ক্লিক করুন ।
wifi3
এই  টিউটোরিয়াল এ আমি WEP protected network হ্যাক করা দেখাচ্ছি। তাই wep এন ক্রিপ্টেড নেটওয়ার্ক সিলেক্ট করবেন ।
সব উইন্ডো বন্ধ হয়ে যাবে এবং আমরা দেখব commonview প্যাকেট ক্যাপ চার করা শুরু করে দিয়েছে
wifi4
প্যাকেট ক্যাপ চার হচ্ছে এখন আমাদের সেগুলো সেভ করতে হবে। এর জন্য

Click on Settings->Options->Memory Usage

Change Maximum Packets in buffer to 20000
wifi5

এবার LOGGING Tab  সিলেক্ট করে   AUTO-SAVING এ টিক দিন ।
এবার Maximam Directory তে ২০০০ এবং  Log File Size এ ২০ লিখে দিন
wifi6

এখন commonview ২০ মেগাবাইট আকারে  প্যাকেট সংগ্রহ করতে থাকবে .ncp ফরমেটে ।  এই ফাইল  আপনি যে directory তে সেভ করেছেন সেখানে জমা হবে ।
এখন যেহেতু আপনি অনেক লগ জমা করছেন তাই এগুলো কে একটি ফাইল এ কম্পাইল করতে হবে এর জন্য Logging Tab  এর  CONCATENATE LOGS. এ যান এবং একটি ফাইল এ পরিনত করুন ।

করা শেষ হলে .ncf  ফরমেটে আমরা একটি ফাইল পাব।
AIRCRACK-NG কে ইন্সটল করুন এবং আমরা যে একটি ফাইল পেয়েছি সেটিকে .cap এ রুপান্তর করতে হবে । এটা করার জন্য
AIRCRACK-NG তে যান এবং

Click on File->Log Viewer->Load Commview Logs-> Choose the .ncf file ,

Now File->Export->Wireshark/TCP dump format .

PART 2 AirCrack-NG
এই অংশ খুব সহজ। AirCrack folder খুলুন এবং Bin->Aircrack-ng GUI.exe  লোকেসান এ যান এবং GUI  এ .Cap file  বসান এবং Next->Next->Next
এখন তার সব তথ্য যেমন সে দিনে কয় মেগাবাইট নেট ব্যবহার করে , তার ওয়াইফাই ইউযারনেম, পাসওয়ার্ড সব আপনি পেয়ে যাবেন । কিন্তু কয়েক ঘন্টা ও লাগতে পারে ।

wifi hacker tips in bd,wifi hacking tools,wifi password hacking

1 COMMENT