যারা নতুন হ্যাকিং শিখা শুরু করেন তারা অনেক কিছুতেই হোচট খান আর শিখা ছেড়ে দেন। এমন কিছু টেকনিকাল হোচট নিয়ে কথা বলব।

১. SQLi vulnerable  সাইট না পাওয়া : আমাদের দেশে হ্যাকিং মানেই ওয়েব হ্যাকিংকে ধরা হয়। আর তার হাতেখড়ি হয় SQL injection দিয়ে। কিন্তু প্রায় সবাই তখন বলে সাইটই পাই না। আসলে শুরুর দিকে ডর্ক দিয়ে মনমত সাইট পাওয়া কষ্ট। তাই অনেকেই ধর্য্য হারিয়ে ফেলে।

অনেক ব্লগ প্রতিবছরই একগাদা vuln site এর list পোস্ট করে। সেখান থেকে ট্রাই করা যেতে পারে। দেশ বিদেশি ফরাম গুলোতে প্রতি মাসেই এমন লিস্ট পেতে পারেন। python শিখে একটা ডর্কার টুল বানিয়ে ফেলতে পারেন। এতে আপনার কাজের সুবিধা হবে।

২. Backconnect করতে না পারা : আমরা নেটকেট দিয়ে সহজেই বেককানেক্ট করতে পারি। কিন্তু আমরা যারা 3G মোডেম দিয়ে কাজটা করতে চাই তাদেত কানেক্ট হয় না। আই জাতীয় সমস্যা হয় IP static না করলে। চেষ্টা করে দেখুন।

৩. Server rooting Exploit না পাওয়া : সার্ভার rooting শেখার সময় অনেকেই Exploit পান না। আসলে এটা তেমন কিছুই না। শেল থেকে কারনেলের ভার্সনটা দেখে

তা Google এ সার্চ করলেই পাবেন। টিউটোরিয়ালের সাথে আপানার kernel এক নাও হতে পারে।

৪. আমারা একটি মধ্যবিত্তপ্রধান দেশের অধিবাসী। আমাদের খুব কমজনের কাছেই ভাল মানের আনলিমিটেড ইন্টেরনেট কানেক্টশন আছে। তাই ইন্টেরনেট না থাকা আমাদের ব্যাপক ভাবেই প্রভাবিত করে। তাই আমি বলব এই সমস্যা সমাধানে আমাদের উচিত অফলাইন প্লাটফর্ম যেমন DVWA এর মত প্লাটফর্ম ব্যাবহার করা 🙂

পুরো পোস্টটি পড়ার জন্য ধন্যবাদ