অণু ও পরমাণু!

১।    দ্রাব্যতা কি? দ্রাব্যতার সমীকরণটি লিখ।

উত্তরঃ কোন নির্দিষ্ট উষ্ণতায় ১০০ গ্রাম দ্রাবকে গ্রামে প্রকাশিত যে পরিমাণ দ্রব দ্রবীভূত হয়ে সম্পৃক্ত দ্রবণ উৎপন্ন করে     তাকে ঐ উষ্ণতায় ঐ দ্রবের দ্রাব্যতা বলে।
১০০ গ্রামে প্রকাশিত দ্রব্যের ওজন

দ্রাব্যতার সমীকরণঃ  দ্রাব্যতা =

গ্রামে প্রকাশিত দ্রাবকের ওজন

২।    অণু ও পরমাণু কাকে বলে? উহাদের ৫টি পার্থক্য লিখ।

উত্তরঃ অণুঃ অণু শব্দের অর্থ ক্ষুদ্র। মৌলিক বা যৌগিক পদার্থের ক্ষুদ্রতম কণা ঐ পদার্থের ধর্মাবলী অক্ষুন্ন রেখে     স্বাধীনভাবে অবস্থান করতে পারে তাকে অণু বলে।

পরমাণুঃ ‘পরম’ শব্দের অর্থ অত্যন্ত আর অণু শব্দের অর্থ ক্ষুদ্র। পরমাণু শব্দের অর্থ অত্যন্ত ক্ষুদ্র। মৌলিক পদার্থের যে     ক্ষুদ্রতম কণা অবিভাজ্য অবস্থায় রাসায়নিক বিক্রিয়ায় অংশগ্রহন করে এবং যার মধ্যে মৌলিক পদার্থটির সকল ভৌত ও     রাসায়নিক ধর্ম বর্তমান থাকে তাকে পরমাণু বলে।

অণু ও পরমাণু

অণু ও পরমাণু এর ৫টি পার্থক্য নিন্মে দেয়া হলোঃ-

অণু:-

১। অণু মৌলিক বা যৌগিক পদার্থের বৈশিষ্ট রক্ষাকারী ক্ষুদ্রতম কণা।     রক্ষাকারী অত্যন্ত ক্ষুদ্রতম    কণা।
২। অণু সরাসরি রাসায়নিক বিক্রিয়ায় অংশগ্রহন করে  না।
৩। অণুর স্বাধীন সত্তা আছে।
৪। অণুকে বিশ্লেষণ করলে একই বা ভিন্ন প্রকারের   পরমাণু পাওয়া যায়।
৫। অণু স্থায়ী।

পরমাণু:-

১। পরমাণু মৌলিক পদার্থের বৈশিষ্ট

২। পরমাণু সরাসরি রাসায়নিক বিক্রিয়ায় অংশগ্রহন করে।

৩। অধিকাংশ পরমাণুর স্বধীন সত্তা নেই।

৪। পরমাণুকে অধিক বিভক্ত করলে  মৌলের  নিজস্ব স্বাতন্ত্র্য লোপ পায়।

৫। পরমাণু অস্থায়ী

অণু ও পরমাণু,Molecules and atoms,onu o poromanu,রসায়ন,ক্যামিস্ট্রি